আজ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বামী-স্ত্রী সদস্য নির্বাচিত বাবা চেয়ারম্যান, ছেলে মেম্বার

Spread the love

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি.
লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চরকাদিরা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীক নিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা ও বর্তমান চেয়ারম্যান মাও. খালেদ সাইফুল্লাহ। একই ইউনিয়নে তার ছেলে ইসলামী আন্দোলন সমর্থিত মুফতি নুরুল্লাহ খালেদ ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার ১১ই নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে হাতপাখা প্রতীকে ৪ হাজার ৭৬৮ ভোট পেয়ে খালেদ সাইফুল্লাহ বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আশরাফ উদ্দিন রাজন রাজু মোটরসাইকেল প্রতীকে ৩ হাজার ৭৯৭ ও নৌকা প্রতিকের প্রার্থী নুরুল ইসলাম সাগর ১ হাজার ৫শ’ ১৩ ভোট পেয়েছেন। এদিকে, নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মাও. খালেদ সাইফুল্লাহর ছেলে মুফতি নুরুল্লাহ খালেদ ৭০০ ভোট পেয়ে সদস্য নির্বাচিত হন। এছাড়া চরমার্টিন ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক নিয়ে ইউসুফ আলী মিয়া, চরগাজীতে তাওহিদুল ইসলাম সুমন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এর আগে চরলরেন্স ইউপিতে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী একেএম নুরুল আমিন মাস্টার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এছাড়া কমলনগর উপজেলার চরলরেন্স ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে স্বামী মো. ইছমাইল হোসেন ও ১.২.৩নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী সদস্য হিসেবে স্ত্রী নাসিমা আক্তার নির্বাচিত হন।

নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য স্বামী ইছমাইল হোসেন ও স্ত্রী নাছিমা আক্তার বলেন, মানুষ যে এইভাবে আমাদের দুইজনকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে। সেটা কখন চিন্তাও করিনি। তবে গত কয়েক বছরের তুলনায় উৎসবমুখর পরিবেশে মানুষ ভোট দিতে পেরেছে বলে দাবি করেন তারা। নির্বাচিত হওয়ার পর দায়িত্বের পাশাপাশি এলাকার মানুষের কাছে চিরঋণী হয়ে গেলাম। যেন সুন্দরভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারি,সেটাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ। এ ব্যাপারে খালেদ সাইফুল্লাহ বলেন, আল্লাহর রহমতে সততার সঙ্গে ৫ বছর পরিষদ চালিয়েছি। মানুষকে ন্যায্য অধিকার পেতে কাজ করছি। উৎসবমুখর পরিবেশে তারা আমাকে ও আমার ছেলেকে ভোট দিয়ে জয়ী করেছেন। জনগণের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি। আমি চাই আমার উত্তরাধিকাররা যেন সারাজীবন জনগণের সমর্থন নিয়ে ইসলামী নিয়ম-কানুন মতো খেদমত করতে পারে, সেটাই আশা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ