আজ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

টিকা নেওয়ার সর্বনিম্ন বয়সসীমা ১৮ বছর নির্ধারণ

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক.
কয়েক দফা সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের পর আবারও টিকা নেওয়ার সর্বনিম্ন বয়সসীমা ১৮ বছর নির্ধারণ করল সরকার। এখন থেকে আঠারো বছরের ওপরের যেকেউ সুরক্ষা ওয়েবসাইট এবং অ্যাপে নিবন্ধন করতে পারবেন।

আজ বুধবার সম্প্রসারিত বিতরণ কর্মসূচির (ইপিআই) সদস্যসচিব ডা. শামসুল হক সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকেই সুরক্ষা ওয়েবসাইটে আঠারো বছরের বেশি বয়সীদের টিকা নিবন্ধন কার্যক্রম চালু হয়েছে। এখন থেকে এই বয়সীরা যে কেউ টিকার জন্য নিবন্ধন করে টিকা নিতে পারবেন।

এর আগে গত ৪ সেপ্টেম্বর ১৮ বছরের যেকোনো শিক্ষার্থী টিকা নিতে পারবেন বলে জানিয়েছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক। তবে নানা জটিলতায় পরে সেটি বাস্তবায়ন হয়নি।

করোনা প্রতিরোধে জানুয়ারিতে ৫৫ বছর বয়স নির্ধারণ করে শুরু হয় টিকার নিবন্ধন। তবে এর দুই সপ্তাহের মাথায় বয়সসীমা কমিয়ে আনা হয় চল্লিশে। এরপর তৃতীয় দফায় পঁয়ত্রিশ, চতুর্থ দফায় ত্রিশ, পঞ্চম দফায় পঁচিশ, ষষ্ঠ দফায় আঠারো চূড়ান্ত করল সরকার। এ ছাড়া স্কুল-কলেজের ১৭ থেকে ১২ বছর বয়সীদেরও টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

এরই মধ্যে ১৪ অক্টোবর পরীক্ষামূলকভাবে ১২০ জন শিশু শিক্ষার্থীকে টিকা দেওয়া হয়। চলতি মাসেই রাজধানীর সব স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়ার কথা ভাবছে সরকার। প্রথম পর্যায়ে দেওয়া হবে ফাইজারের ৩০ লাখ টিকা।

সারা দেশের এক কোটির বেশি ছেলে-মেয়েকে টিকা দেওয়ার কথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এরই মধ্যে শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলোতে শিক্ষার্থীদের তালিকা প্রস্তুত করতে নির্দেশনা পাঠিয়েছে শিক্ষা অধিদপ্তর। সেটি পেলেই শিশুদের টিকা দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন জাহিদ মালেক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ