আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

জন্মের পর থেকে ভাত খায়নি সে!

Spread the love

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি.
জন্মের পর থেকেই ভাত খায়নি মো. হুজাইফা নামের এক নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তিনি ময়মনসিংহের ত্রিশালের মঠবাড়ী ইউনিয়নের অলহরী খারহর এলাকার মো. জুলহাস উদ্দিনের দ্বিতীয় ছেলে।

১৪ বছর বয়সী হুজাইফা স্থানীয় অলহরী ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী। পরিবারে অভাব-অনটন থাকায় কিছুদিন একটি দোকানে কাজও করেছে সে।

এলাকাবাসী ও তার পরিবার সূত্রে জানা যায়, হুজাইফাকে ভাত খাওয়ানোর জন্য অনেক চেষ্টা করেও ভাত খাওয়ানো সম্ভব হয়নি।

হুজাইফার প্রতিবেশী গ্রাম পুলিশ লক্ষণ রবিদাসর বলেন, আমাদের প্রতিবেশী হুজাইফা কখনো ভাত খেয়েছে বলে আমরা শুনিনি। সে ভাতের পরিবর্তে রুটি, চিড়া ও অন্যান্য খাবার খেয়েই ক্ষুধা নিবারণ করে। দূরদূরান্তের অনেকেই এই বিষয়টা জানতে আমাকে জিজ্ঞাসা করে। এ ধরনের ঘটনা আসলেই বিরল।

আরেক প্রতিবেশী কৃষক দেলোয়ার হোসেন বলেন, সে সাদা ভাত, পোলাও, জাও, খিচুড়ি ও খুদের ভাত কখনো খায়নি। অনেক চেষ্টা করেও তাকে এগুলো খাওয়ানো সম্ভব হয়নি। আমরা তার এই অস্বাভাবিক খাওয়ার তালিকা দেখে আশ্চর্য হই।

হুজাইফার মা নূরজাহান খাতুন বলেন, আমার দুই ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে হুজাইফার এই ব্যতিক্রম খাওয়ার চাহিদা আমাদের কেও কষ্ট দেয়। তারপরও ছেলে ভাত না খাওয়ায় তার জন্য আলাদা খাবারের ব্যবস্থা করতে হয়। আমরা অনেক চেষ্টা করেছি ভাত খাওয়ানোর জন্য। চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছি।

হুজাইফার পিতা মো. জুলহাস উদ্দিন বলেন, ভাত খাওয়ানোর জন্য হুজাইফাকে ডাক্তারের কাছেও নেওয়া হয়েছে বেশ কয়েকবার কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। আমি খেটে খাওয়া মানুষ। আমার জন্য তার আলাদা খাবার জোগাড় করা কষ্ট হয়ে পড়ে। কয়েকবার ডাক্তার দেখিয়েছি এখন আর টাকার জন্য দেখাতে পারছি না।

ভাত না খাওয়ার বিষয়ে হুজাইফাকে জিজ্ঞাসা করলে সে জানায় আমি আমার জীবনে কোনো দিন ভাত খায়নি। ভাতের গন্ধ আমি সহ্য করতে পারি না। ভাত, পোলাও, জাও, খিচুড়ি ও খুদের ভাত দেখলেই আমার বমি আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ