আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

সংক্রমণ ৫ শতাংশের নিচে না নামলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ

Spread the love

নিজস্ব প্রতিবেদক :
করোনা সংক্রমণ ৫ শতাংশের নিচে না নামলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া উচিৎ হবে না বলে মনে করছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, করোনা পরিস্থিতিতে দেশের নাগরিক ও শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য বিষয়ে ঝুঁকি নেওয়া হবে না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার বিষয়ে আমরা যে তারিখই নির্দিষ্ট করি না কেন, অবস্থা অনুকূলে না এলে মানুষের স্বাস্থ্য নিয়ে আমরা ঝুঁকি নেবো না। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক স্মরণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

টানা ১৪ মাস স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়েছে। এ অবস্থায় গত বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে দীপু মনি জানিয়েছিলেন ১৩ জুন থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ওই সংবাদ সম্মেলনে চলতি বছরের বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষা কীভাবে অনুষ্ঠিত হবে, সে বিষয়েও বিস্তারিত জানিয়েছিলেন তিনি। সে অনুযায়ী ৬০ দিন ক্লাস শেষে এসএসসি ও সমমান এবং ৮৪ দিন ক্লাস শেষে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। তবে ১৩ জুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খুললে এটি আরও পিছিয়ে যেতে পারে।

গতকাল শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমরা অনলাইন শিক্ষাব্যবস্থা চালু রেখেছি। যদিও তার সীমাবদ্ধতা আছে, প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। এখন আমরা একটা যুদ্ধের মধ্যে আছি।

আমাদের কাছে শিক্ষার্থী, শিক্ষক এবং অভিভাবক সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। অনলাইনে পড়াশোনা চলছে। প্রতিদিনের অনলাইন পড়াশোনার মান এবং পরিসর বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং আমরা সবাই এতে অভ্যস্ত হয়ে যাচ্ছি। সারা পৃথিবীও অভ্যস্ত হয়ে যাচ্ছে। আমরা বিস্তর পরিকল্পনা করেছি, কীভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা যায়। আমাদের সেই ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। ’
তিনি আরও বলেন, ‘বিশেষজ্ঞরা বলেছেন সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের নিচে না নামলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে খুলে দেওয়া উচিত নয়। ঈদযাত্রার কারণে সংক্রমণের হার আবারও কিছুটা ঊর্ধ্বগামী। আমরা বলেছি ১৩ জুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো খুলে দিতে চাই। আমরা চেষ্টা করব। অনেক জায়গা থেকে চাপ আছে, অনেক আন্দোলনের ডাক আছে। তবে সেটি বৃহত্তর ছাত্র সমাজ বা অভিভাবক যারা আছেন, তাদের মতামত প্রতিফলিত করে না। ’

দীপু মনি বলেন, ‘আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো দ্রুত সময়ের মধ্যে খুলে দিতে চাই। আমাদের সব ধরনের প্রস্তুতি আছে। অবশ্যই করোনা পরিস্থিতি আমাদের মাথায় রাখতে হবে। যখনই আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলি না কেন, আশা করছি দ্রুত সময়ের মধ্যে খুলতে পারব।

সাবেক আইনমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মতিন খসরু স্মরণে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য মতিয়া চৌধুরী, সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ