আজ ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

নিকলীতে জলমহালে বাঁধ দেওয়া নিয়ে সংঘর্ষে শিশুসহ গুলিবিদ্ধ ১০

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:
কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলায় জলমহালে বাঁধ দেওয়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় এক পক্ষের ছোড়া গুলিতে চার শিশুসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে নিকলী উপজেলা সদরের সোয়াইজানি জলমহাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহতদের মধ্যে জাফরাবাদ গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে রিয়ান (৮), মুর্শেদের মেয়ে শ্রাবন্তী (৯), আল আমীনের ছেলে তুহিন (৪), আশরাফুলের ছেলে নিশা (৬), শামসুলের মেয়ে তিশা (১৮) ও দীন ইসলামের ছেলে আকাশের (১৮) নাম জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিকলী উপজেলা সদরের সোয়াইজানি জলমহালটি ছয় বছরের জন্য ইজারা বন্দোবস্ত নেন জাফরাবাদ গ্রামের সাদ্দাম হোসেন। সম্প্রতি ষাইটধার খালিসাহাটি গ্রামের যুবলীগ নেতা নাজিউর রহমান সোহেল জলমহালে বাঁধ দিয়ে পুকুর খননের কাজ শুরু করেন। এ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল। উপজেলা প্রশাসন থেকেও বাঁধ নির্মাণে বাধা দেওয়া হয়। উপজেলা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করার পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (১১ মে) বিকেলে নাজিউর রহমান সোহেল ও তার লোকজন জলমহালে গিয়ে সাদ্দাম ও তার ভাইকে মারপিট করেন। এর জের ধরে উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। একপর্যায়ে একটি পক্ষ শর্টগানের গুলি ছুঁড়লে জলমহালের পাশে খেলতে থাকা জাফরাবাদ গ্রামের চার শিশুসহ অন্তত ১০ জন আহত হন। গুলিবিদ্ধ দীন ইসলামের ছেলে আকাশকে (১৮) উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া গুলিবিদ্ধ নূরুল ইসলামের ছেলে রিয়ান (৮) ও মুর্শেদের মেয়ে শ্রাবন্তীকে (৯) নিকলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহত শামসুলের মেয়ে তিশা (১৮), আল আমীনের ছেলে তুহিন (৪), আশরাফুলের ছেলে নিশাসহ (৬) অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নিকলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামছুল আলম সিদ্দিকী জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় কয়েক শিশু আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। তবে কোন পক্ষ গুলি ছুড়েছে, সেটা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ