আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

আবারও মা হলেন কারিনা

বিনোদন ডেস্ক:

দ্বিতীয় সন্তানের মা হলেন কারিনা কাপুর খান
ফের মা হলেন কারিনা কাপুর ৷ আজ রোববার মুম্বাইয়ের ব্রিঞ্জ ক্যান্ডি হাসপাতালে জন্মদিলেন ফুটফুটে এক পুত্র সন্তানের৷ খবর অনুযায়ী মা ও সন্তান দুজনেই সুস্থ রয়েছেন ৷ দ্বিতীয় সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার সময় হাসপাতালে কারিনার পাশেই ছিলেন স্বামী সাইফ আলি খান৷

২০২০ শুরুর দিকেই সংবাদমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কারিনার দ্বিতীয়বার মা হওয়ার খবর জানিয়ে দিয়েছিলেন সাইফ৷ জানিয়েছিলেন, খুব শীঘ্রই ছোট্ট তৈমুর দাদা হতে চলেছে ৷ তাদের সংসারে আসতে চলেছে নতুন সদস্য৷ সাইফের মুখ থেকে এ খবর ছড়িয়ে পড়তেই হইচই পড়ে যায় গোটা বলিউডে৷

সাইফের এই সাক্ষাৎকার প্রকাশ পাওয়ার পর পরই নিজের ইনস্টাগ্রামে কারিনা পোস্ট করতে শুরু করলেন ক্রমাগত তার বদলে যাওয়া শরীরের ছবি ৷ সঙ্গে জানান দিলেন, তৈমুরের সময়ও ঠিক যেভাবে মা হওয়াকে সহজভাবে নিয়েছেন তিনি, এবারটিও তার হেরফের হচ্ছে না৷

আর তাই তো, এই অবস্থাতেও আমিরের সঙ্গে লাল সিং চাড্ডা ছবির শুটিং শেষ করেছেন৷ হাতে থাকা বিজ্ঞাপনের কাজ শেষ করেছেন৷ বেবি বাম্প নিয়েই ফটোশুট করেছেন৷ নিয়মিত কাজ করেছেন এবং ফিট থেকেছেন৷

বড় ছেলে তৈমুরের জন্মের পর, নাম রাখাকে কেন্দ্র করে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল। কেন তাদের ছেলের নাম রেখেছেন অত্যাচারী তৈমুর লংয়ের নামে। সাইফ ও কারিনা দুজনেই নিজের মতো করে সেই বিতর্কের জবাব দিয়েছিলেন৷ তারা জানিয়ে ছিলেন তৈমুর শব্দের অর্থ লোহা আর তা থেকেই সন্তানের নাম৷

এই বিতর্কের পর থেকেই ছোট্ট তৈমুর আলি খান পাপ্পারাৎজির কাছে হয়ে উঠলেন চোখের মণি৷ এই খুদের ছবি তোলার জন্য পাপ্পারাৎজিরা সদা প্রস্তুত৷ বলিউডের বহু স্টারের তুলনায় এ ব্যাপারে তৈমুরের জনপ্রিয়তা যে অনেক বেশি, তা স্বীকার করে গোটা বলিউডও৷ তাই দেশের মানুষ অধীর অপেক্ষায় ছিল তৈমুরের ভাই বা বোনের ভূমিষ্ঠ হওয়ার খবর নিয়ে৷ এমনকি, বিরুষ্কার মেয়ে হওয়ার পর নেটিজেনরা বলতে শুরু করেছিলেন, যে তৈমুরের জনপ্রিয়তায় ভাগ বসাতে এসেছেন বিরুষ্কা কন্যা ভেদিকা৷

এসব গুঞ্জনকে একেবারেই কানে নেননি সইফ বা করিনা কেউই৷ তবে সাক্ষাৎকারে স্পষ্ট জানিয়েছেন, তৈমুরের জন্মের পর যে ভুলটা তারা করেছেন এবারটি তা আর হচ্ছে না৷ এবার যথেষ্ট গোপনীয়তা বজায় রাখতে চলেছেন সইফিনা ও তার পরিবার৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ