আজ ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

লম্বা ইনিংসের আক্ষেপ সাদমানের

ক্রীড়া প্রতিবেদ:

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন ওপেনার সাদমান ইসলাম অনিক। ব্যাটিং করতে নেমে শুরু থেকে আগলে রেখেছিলেন উইকেটের একপ্রান্ত। সাদাপোশাকে সাদমানের ব্যাটিং ছিল পুরোপুরি টেস্ট মেজাজে। কিন্তু দিনশেষে ইনিংসকে আরও লম্বা না করতে পারার আক্ষেপে পুড়ছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

বুধবার প্রথম দিনের খেলা শেষে সাদমান বলেন, আমি ভালো অনুভব করছিলাম, কিন্তু পিচ ছিল ধীর গতির। আমি লম্বা সময় ধরে ব্যাটিং করার পরিকল্পনায় অটল ছিলাম। সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি। দিনশেষে আমাদের দলীয় সংগ্রহ ভালো দেখাচ্ছে। আমরা ভালো শুরু করেছি, কিন্তু আমাদের আরও বড় রান (ব্যক্তিগত) ও আরও কিছু জুটির দরকার ছিল।

আক্ষেপে পোড়ার কথাই সাদমানের। ব্যক্তিগত ৫৯ রানে জোমেল ওয়ারিক্যানের বলে এলবিডব্লিউর শিকার হন তিনি। বল উইকেট মিস করলেও ওয়ারিক্যানের সঙ্গে উইন্ডিজের জোরালো আবেদনে আউট দেন অভিষিক্ত আম্পায়ার শরফুদ্দৌলা ইবনে শহীদ। এক ইনিংসে তিনটি রিভিউ থাকার পরও অপর প্রান্তে থাকা মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে আলাপ করে রিভিউ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নেন সাদমান। এরপরেই পথ ধরেন সাজঘরের।

রিভিউ নিলে সাদমানের ইনিংস আরও লম্বা হতো। কারণ তিনি ক্রিজে সেট ছিলেন। ততক্ষণে খেলে ফেলেছেন ১৫৪ বল। দিনের শুরু থেকেই ব্যাট করছিলেন। তার ব্যাট থেকে আসে ১৫৪ বলে ৫৯ রান। এ ছাড়া মুশফিক-মুমিনুলও আউট হন ক্রিজে থিতু হয়ে। মুশফিকের ব্যাট থেকে আসে ৩৮ আর মুমিনুল করেন ২৫ রান।

শুরুতে তামিম ইকবাল ফেরার পর নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে জুটি গড়ে দুজনে খেলছিলেন দারুণ। ব্যক্তিগত ২৫ রানে শান্ত রানআউট হয়ে ফিরে গেলে ভাঙে ৪৩ রানের জুটি। এ ছাড়া মুমিনুলের সঙ্গে ৫৩ ও মুশফিকের সঙ্গে ১৫ রানের জুটি গড়েছিলেন সাদমান। মুশফিকের সঙ্গে জুটি ভাঙে সাদমান নিজে আউট হলে। দিন শেষে বড় রানের সঙ্গে সাদমানের কণ্ঠে আক্ষেপ ছিল বড় জুটি গড়তে না পারা নিয়েও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ