আজ ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য তৈরি হবেই: তথ্যমন্ত্রী

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক:

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে আলোচনায় বসলেই নিজেদের অবস্থান থেকে সরে যাওয়া নয় বলে মন্তব‌্য করেছেন তথ‌্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, কওমি আলেমদের সঙ্গে আলোচনা চললেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য তৈরি হবে। মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) সচিবালয়ে ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত জ্যঁ মারিন শুহের সঙ্গে বৈঠক শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ সময় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, তথ্যসচিব খাজা মিয়া, ফরাসি দূতাবাসের ইকোনোমিক কাউন্সিলর পিয়েরে-হেনরি লেফোঁ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

ভাস্কর্য নিয়ে কওমি আলেমদের সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যেকারও সঙ্গেই বসতে পারেন। যারা নিজের জন্মের তারিখ বদলে দিয়ে ১৫ আগস্ট কেক কাটেন, তাদের সঙ্গেও সরকার বসেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বসেছেন। যারা সরকারকে প্রতিদিন টেনে নামিয়ে ফেলার হুমকি দেয়, তাদের সঙ্গেও আমরা বসেছি।

হাছান মাহমুদ বলেন, সরকার বিভিন্ন মতের মানুষের সঙ্গে বসতেই পারে। এটি গণতান্ত্রিক দেশ। সুতরাং যারা ভাস্কর্য ইস্যুতে বিরূপ মন্তব্য করছেন, তাদের সঙ্গে সরকার বসতেই পারে। কিন্তু বিভিন্ন মতের মানুষের সঙ্গে বসা মানে এই নয় যে, আমরা আমাদের অবস্থান থেকে বিচ্যুত হয়েছি। আমাদের অবস্থান অপরিবর্তিত এবং সমস্ত মৌলবাদী অপশক্তি, যারা এই দেশটাকে পিছিয়ে দিতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি-ঐক্য-সংহতি নিয়ে দেশ এগিয়ে যাবে। সব ইসলামি দেশসহ সারাবিশ্বের মতো এই দেশেও শত শত বছর ধরে ভাস্কর্য ছিল, আছে এবং থাকবে। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যও হবে।

তথ‌্যমন্ত্রী বলেন, পদ্মাসেতুর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের জন্য ক্ষমা চেয়ে প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপির অভিনন্দন জানানো উচিত। পদ্মা সেতু অবশ্যই রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি। বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা তার দূরদর্শী নেতৃত্ব ও সময়োচিত পদক্ষেপ নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়ে এই সম্পত্তি রাষ্ট্রের সঙ্গে যুক্ত করেছেন। আজ পদ্মা সেতু দৃশ্যমান, এর মাধ্যমে আজ পদ্মার দুই কূল-দুই পাড় সংযুক্ত হয়েছে। তিনি বলেন, কিন্তু এই পদ্মা সেতু যেন না হয়, সেজন্য বহু ষড়যন্ত্র হয়েছে। সেই ষড়যন্ত্রে বিএনপিও জড়িত ছিল।

ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা দুই দেশের ঐতিহাসিক সম্পর্ক, একইসঙ্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ও বাংলাদেশে ফরাসি বিনিয়োগ নিয়ে আলোচনা করেছি।

এছাড়া গুজব-বিশৃঙ্খলা ও সামাজিক অস্থিরতা রোধে করণীয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলেও মন্ত্রী জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     সম্প্রতি প্রকাশিত আরো সংবাদ