আজ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

পোড়া তেল-মবিল পুনরায় প্রক্রিয়াজাত করে বিক্রি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পোড়া তেল-মবিল পুনরায় প্রক্রিয়াজাত করে বিক্রি
রাজধানীর বিভিন্ন রেস্তোরাঁ ও চাইনিজ রেস্টুরেন্টে ব্যবহৃত পোড়া তেল এবং বিভিন্ন যানবাহনে ব্যবহৃত মবিল সংগ্রহের পর প্রক্রিয়াজাতের মাধ্যমে খাবার তেল হিসেবে তৈরি ও বিক্রি করতেন খায়রুল ইসলাম মামুন।

গত দুই বছর যাবত তিনি স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর ওই প্রক্রিয়াজাতকৃত তেল লিটারে ৫০ টাকা বিক্রি করে আসছিলেন তিনি।

পোড়া তেল ও মবিল পুনরায় প্রক্রিয়াজাত করে খাবার তেল হিসেবে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্রয়ের অভিযোগে রাজধানীর হাতিরঝিল থানাধীন মীরেরবাগে অভিযান পরিচালনা করে পুলিশের এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

অভিযানে সাড়ে চার হাজার লিটার পোড়া মবিল ও তেল জব্দসহ প্রতিষ্ঠানের মালিক ইসলাম মামুনকে ২ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে
র‌্যাব পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার রাত আটটার দিকে সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে হাতিরঝিল থানাধীন মীরেরবাগ নতুন রাস্তা মসজিদ গলি ১৫/১ নং বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব-৩ এর একটি দল। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছেন র‌্যাব-৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

অভিযান শেষে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, রাজধানীর বিভিন্ন রেস্তোরাঁ ও চাইনিজ রেস্টুরেন্টে খাদ্য সামগ্রী তৈরিতে বিপুল পরিমাণ তেল ব্যবহৃত হয় যা পরবর্তীতে অল্প দামে ক্রয় করতেন অভিযুক্ত খায়রুল ইসলাম মামুন।

পোড়া তেল ও মবিল সংগ্রহ করে তিনি তার বাসায় এনে প্রক্রিয়াজাত করার মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন স্থানে ৪৫-৫০ টাকা লিটারে বিক্রি করে আসছিলেন।

ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু বলেন, তার প্রক্রিয়াজাতকৃত এই তেল স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্নস্থানের বেকারি ও হোটেলগুলোতে তিনি ওই তেল সরবরাহ করতেন। যা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

এজন্য প্রতিষ্ঠানটির মালিক খায়রুল ইসলাম মামুনকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। তার প্রক্রিয়াজাত করা কারখানা সিলগালা করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে সাড়ে চার হাজার লিটার পোড়া তেল ও মবিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category