আজ ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

পাকুন্দিয়ায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ১৬ জনের জেল-জরিমানা

পাকুন্দিয়া প্রতিনিধি :
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার মাধ্যমে কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় ছিনতাইকারী এক নারী, এক আলু ব্যবসায়ী, পাঁচ মাছ বিক্রেতা ও ৯ পথচারীসহ মোট ১০ জনকে বিভিন্ন অপরাধে বিভিন্ন মেয়াদে জেল-জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমানের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত এসব জেল-জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্র জানায়, উপজেলার পুলেরঘাট এলাকার এক প্রবাসীর স্ত্রী এনআরবি ব্যাংক পুলেরঘাট শাখা থেকে ১০ হাজার টাকা উত্তোলন করে ফেরার পথে ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন। এসময় স্থানীয় লোকজন ছিনতাইকারী দলের সদস্য শরুফা (৪০) নামের এক নারীকে আটক করেন।

খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান পুলিশসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে উপস্থিত সাক্ষীদের সাক্ষ এবং ওই নারী ছিনতাই করার অপরাধ স্বীকার করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত শরুফা কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার পূর্বভরাটি গ্রামের মনজিল মিয়ার স্ত্রী।

পরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান পুলেরঘাট বাজারের মাছ মহালে অভিযান পরিচালনা করেন।

এসময় তিনি নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ বিক্রির দায়ে চার মাছ বিক্রেতাকে মৎস্য রক্ষা ও সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ এর ৫(১) ধারায় চার হাজার টাকা জরিমানা ও ১৫০ কেজি পিরানহা মাছ জব্দ করেন।

একই বাজারে রং মিশ্রিত লোনা পানির ইলিশ বিক্রির দায়ে ফারুক (৪২) নামের অপর এক মাছ বিক্রেতাকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪১ ধারায় চার হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

একই বাজারে অভিযান পরিচালনা করে সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে আলু বিক্রির দায়ে লোকমান (৪৫) নামের এক আলু ব্যবসায়ীকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান। এসময় অন্যান্য ব্যবসায়ীদের সর্তক করা হয়।

পরে বিকালের দিকে একই এলাকায় অভিযান চালিয়ে মুখে মাস্ক ব্যবহার না করায় নয়জনকে দণ্ডবিধি ১৮৬০এর ২৬৯ধারায় মোট এক হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) ও মৎস্য সম্প্রসারণ কর্মকর্তা অন্তরা ইয়াসমিন, উপজেলা ভূমি অফিসের নাজির মো. শাহ আলমসহ পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) একেএম লুৎফর রহমান ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category