বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন

বিসিবিতে উৎসবের আমেজ : বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বরণে যত আয়োজন

ক্রীড়া ডেস্ক :
ক্রিকেট এবং ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে বেশ কিছু বিশেষণ শব্দ ব্যবহার করা হয়। যেমন দুর্দান্ত, দুরন্ত, দুর্বার, অবিশ্বাস্য, অসাধারণ ইত্যাদি। কিন্তু বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের জন্য এখন এই বিশেষণগুলো আর যথেষ্ট নয়। কারণ তাদের মাথায় উঠেছে সেরার মুকুট। তাদের হাতে এখন বিশ্বকাপ ট্রফি। নামের আগে যুক্ত হয়েছে বিশ্বচ্যাম্পিয়নের তকমা।

বাংলাদেশের আকাশে-বাতাসে এখন শুধু বিজয়ের সুবাস। বাংলাদেশ ক্রিকেটের ইতিহাসে এক ‌‘বিরাট ইতিহাস’। বিশ্ব ক্রিকেট ইতিহাসে এক ‘অনন্য ইতিহাস’। যুব বিশ্বকাপ পেল নতুন এক চ্যাম্পিয়নকে যার নাম ‌‘বাংলাদেশ’।

ছোটদের হাত ধরেই কেটেছে বাংলাদেশের শিরোপা খরা। দীর্ঘ ২২ বছরের অপেক্ষা ঘুচিয়ে যুবা বিশ্বকাপের শ্রেষ্ঠত্বের মুকুট ছিনিয়ে আনল আকবর আলীর দল। এর আগে কখনোই কোনো বৈশ্বিক টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা হয়নি বাংলাদেশের। এবারই প্রথম ফাইনাল খেলেছে লাল-সবুজের জার্সিধারীরা। আর প্রথমবারই জিতেছে বিশ্বকাপ শিরোপা।

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ১৩তম আসরের ফাইনালে শক্তিশালী ভারতকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতে যুবা টাইগাররা। বিশ্বকাপ জয়ী দলটির এবার দেশে ফেরার পালা। কারণ তাদের জন্য অপেক্ষা করছে এই বাংলার আকাশ-বাতাস আর ১৬ কোটি মানুষ। অপেক্ষা করছে তাদের বাবা মা-ও।

রংধনুর দেশ দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বিশ্বকাপ জয়ের দুই দিন পরই দেশের উদ্দেশে রওনা করবে তৌহিদ হৃদয়-পারভেজ হোসেন ইমনরা। অর্থাৎ বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দেশে ফিরবে যুব বিশ্বকাপের নয়া চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। বিশ্বকাপ ট্রফি হাতে আকবর আলীর দলটি বিকাল ৪টা ৫৫ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছাবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

জানা গেছে চ্যাম্পিয়নদের বিমানবন্দরেই অভ্যর্থনা দেবে দেশের ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থাটি। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ও পরিচালকরা উপস্থিত থেকে যুবাদের বরণ করে নেবেন ফুল দিয়ে।

এর মধ্যে হোম অব ক্রিকেট ছেয়ে গেছে যুবাদের ছবি সম্বলিত ব্যানারে। বর্ণিল আলোক সজ্জায় সাজানো হয়েছে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের চারদিক। জ্বলছে লাল-সবুজ রঙের বাতি।

বিসিবির তথ্যমতে বিমানবন্দর থেকে ক্রিকেটাররা সবাই চলে আসবে মিরপুরে। সেখানে তাদের নিয়ে কেক কাটবেন বিসিবি সভাপতি। তারপরই বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা মুখোমুখি হবে সংবাদমাধ্যমের। তাদের জন্য রাতে ডিনারের ব্যবস্থা রাখছে বিসিবি।

যুবা টাইগারদের মধ্যে যাদের বাসা ঢাকাতে তারা রাতেই চলে যাবেন আর বাকিরা বিসিবি একাডেমিতে অবস্থানের পর পরদিন সকালে গ্রামের বাড়িতে ফিরবেন।

আয়োজন নিয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আপনারা জানেন যে অনূর্ধ্ব-১৯ দল আগামীকাল (বুধবার) সকালে আসার কথা ছিল, এটা পরিবর্তন হয়ে এখন আগামীকাল বিকাল ৫টারর দিকে এসে পৌঁছাবে। সো ওইভাবেই পরিকল্পনা করা হচ্ছে যেহেতু অনেকদিন ধরে ছেলেগুলো দেশের বাইরে ছিল তো সবকিছু বিবেচনা করে আমরা যতটুকু সম্ভব স্বল্প সময়ের মধ্যে কিছু অ্যারেঞ্জমেন্ট রাখছি। বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা জানিয়ে বোর্ডে নিয়ে আসার জন্য এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাদের পরিবারের কাছে পাঠানো হবে।’

‘এখানেই শেষ নয়। ওরা ফিরলে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে। সরকারের সঙ্গে আলোচনা করেই এই ব্যবস্থা হবে’, যোগ করেন নিজামউদ্দিন চৌধুরী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: