শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৯:২৯ পূর্বাহ্ন

এবার ‘পপুলেশন রেজিস্টারের’ অনুমোদন মোদী সরকারের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :
নাগরিকত্ব আইন ও নাগরিকপঞ্জি বিতর্কে উত্তাল গোটা ভারত। এর মধ্যেই ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টারের অনুমোদন দিল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। ফলে এটি নিয়ে নতুন করে সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ এইট্টিন জানায়, ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টারের (এনপিআর) ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। একাধিক রাজ্যের আপত্তি সত্ত্বেও এনপিআর চালু করতে বদ্ধপরিকর মোদী সরকার। মঙ্গলবার সেটার অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার বা এনপিআর কী তা অনেকেরই জানা নেই। প্রকৃতপক্ষে এর মাধ্যমে কোন এলাকায় কতজন বাস করেন, শেষ ৬ মাসে কোন এলাকায় নতুন কত বাসিন্দা এসেছেন তার হিসাব নেওয়া হয়।

ওই হিসাবের মধ্যে নারী, পুরুষ, শিশুর পাশাপাশি ধর্ম অনুসারে ভাগ করেও তথ্য সংগ্রহ করা হয়। আদমশুমারিতে যেমন জনসংখ্যা উঠে আসে তেমনি নাগরিকদের বিভিন্ন নথি দেখে ওই জনসংখ্যার চরিত্র বিশ্লেষণ করে এনপিআর। এনপিআরে জানতে চাওয়া হয়, নির্দিষ্ট ব্যক্তি কোন ধর্মের, তিনি কি বৈধ নাগরিক না কি আইনি বিধি মেনে কিছুদিনের জন্য আছেন।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ন্যাশনাল পপুলেশন রেজিস্টার বা এনপিআর-এর কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্র বলছে, আপাতত এনপিআর-এ সম্মতি নেই পশ্চিমবঙ্গের।

ভারতে ২০২১ সালে আদমশুমারির পাশাপাশি এনপিআর হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বিভিন্ন রাজ্য এতে সম্মতি না দেওয়ায় শেষ পর্যন্ত এনপিআর বাস্তবায়ন হবে কি না তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: