শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২০, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন

কিশোরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ৯ ঘর পুড়ে ছাই, কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি :
কিশোরগঞ্জের ইটনা উপজেলার জয়সিদ্ধি বাজারে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে ওই বাজারের ৯টি দোকান ও বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। রবিবার (১৫ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

এ দিকে, অগ্নিকাণ্ডে দোকান ও বসতঘর পুড়ে প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্তরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে জয়সিদ্ধি বাজারের পারভেজ ঠাকুরের লেপ-তোশক তৈরির দোকানে আগুন লাগে। এতে মুহূর্তেই আশপাশের বেশ কয়েকটি দোকানে ছড়িয়ে পড়ে আগুন। এ সময় ভয়াবহ আগুনের লেলিহান শিখা দেখে স্থানীয়রা ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে তৎপরতা শুরু করেন।

একপর্যায়ে প্রায় দেড় ঘণ্টা চেষ্টার পর সকাল ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন তারা। তবে এরই মধ্যে পারভেজ ঠাকুরের লেপ-তোশক তৈরির দোকান ছাড়াও রিপনের কাপড় ও জুতার দোকান, তাপসের স্টেশনারি দোকান, নিবারন পালের স্বর্ণের দোকান, গোপাল বণিকের স্বর্ণের দোকান, কালিপদের কাঁচামালের দোকান এবং হোমিও চিকিৎসক এস এম নোমান ওরফে জালাল উদ্দিনের দোকানসহ দুইটি বসতঘরের মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এছাড়া মিজানুর রহমানের কাপড়ের দোকানসহ আরও বেশ কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালামাল আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

এর মধ্যে ভয়াবহ এই আগুনে কেবল হোমিও চিকিৎসক এস এম নোমান ওরফে জালাল উদ্দিনের ৪৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার ছেলে এস এম আমান।

এ দিকে, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ইটনা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চৌধুরী কামরুল হাসান, ইউএনও নাফিসা আক্তার ও থানার ওসি মোহাম্মদ মুর্শেদ জামান ইতোমধ্যেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যাপারে জয়সিদ্ধি বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান ঠাকুর জানান, আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা সর্বস্ব হারিয়েছেন। ক্ষতিপূরণসহ পুনর্বাসন করা না হলে ওই পরিবারগুলোতে বিপর্যয় নেমে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: