সোমবার, ২০ জানুয়ারী ২০২০, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

শনিবার কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে আসছেন মিজানুর রহমান আজহারী

করিমগঞ্জ প্রতিনিধি :
সমকালীন বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় তরুণ মুফাসসির ও ইসলামী স্কলার মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জে আসছেন। আগামী শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) করিমগঞ্জ উপজেলার জয়কা ইউনিয়নের পানাহার ভূঁইয়াবাড়ির ঐতিহ্যবাহী তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান মুফাসসির হিসেবে বক্তব্য রাখবেন তিনি।

আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) বিকাল ৪টা থেকে শুরু হয়ে মধ্যরাত পর্যন্ত এই তাফসিরুল কোরআন মাহফিল চলবে। মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী রাত ৯টায় বক্তব্য শুরু করবেন।

তাফসির মাহফিলে বিশেষ আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখবেন বিভিন্ন বাংলা ও ইংরেজি পত্রপত্রিকার কলামিস্ট হাফেজ মাওলানা যুবায়ের আহমাদ ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহের সাবেক ইমাম মাওলানা আবুল খায়ের মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ।

এছাড়াও কিশোরগঞ্জ পৌর মহিলা কলেজের ইংরেজির বিভাগীয় প্রধান মাওলানা আজিজুর রহমান, মাওলানা মাহমুদুর রহমান, মাওলানা আমানুল্লাহ আল কাফী, মুফতি আতিকুর রহমান কাসেম দৌলতীসহ দেশবরেণ্য আলেমগণ বক্তব্য রাখবেন।

করিমগঞ্জ ছোবহানিয়া ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল বারী রিয়াদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিতব্য এ তাফসির মাহফিলে বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন কিশোরগঞ্জ জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি প্রকৌশলী মো. শরীফুল ইসলাম শরীফ ও করিমগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ মো. নাসিরুল ইসলাম খান আওলাদ। সহসভাপতি হিসেবে থাকবেন মাওলানা মো. মুখলেছুর রহমান।

মিজানুর রহমান আল-আজহারী বর্তমান বাংলাদেশের আলোড়ন সৃষ্টিকারী বক্তা। বাংলাদেশে বৃত্তি ও মেধাতালিকায় স্থান করে নিয়ে দাখিল ও আলিম পাস করে স্কলারশিপ নিয়ে উচ্চ শিক্ষার জন্য মিশর গমন করেন তিনি।

বিশ্ববিখ্যাত বিদ্যাপীঠ ঐতিহাসিক আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সঙ্গে গ্র্যাজুয়েশন সম্পন্ন করেন।তারপর মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে এমফিল সম্পন্ন করে বর্তমানে তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি গবেষণা করছেন।

ইংরেজি, বাংলা ও আরবিতে সমানভাবে পারদর্শী মিজানুর রহমান আজহারী বাংলাদেশ ছাড়াও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ইসলামী বক্তা হিসেবে আলোচনা করেছেন। কিশোরগঞ্জে তার আগমনকে কেন্দ্র করে ধর্মপ্রাণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ বিরাজ করছে।

তাফসির মাহফিলের আয়োজক এবিসি পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার সাঈদুর রহমান বলেন, এবারের তাফসির মাহফিল উপলক্ষ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। মাহফিলটি সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নে কিশোরগঞ্জবাসীর দোয়া, উপস্থিতি ও আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন তিনি।

এ মাহফিল আয়োজনের উদ্দেশ্য কী তা জানতে চাইলে ইঞ্জিনিয়ার সাইদুর রহমান বলেন, আমাদের সমাজের সমস্যাগুলোর একমাত্র সমাধান হলো কোরআন। কোরআনের আলোয় সমাজকে আলোকিত করা গেলে মাদক, সন্ত্রাস, দুর্নীতি, অন্যায়-অপরাধ থাকবে না।

এ তাফসির মাহফিল থেকে কোরআনের আলো পেয়ে শিরক, বিদআত, মাদক, সন্ত্রাস, ছিনতাই ও দুর্নীতিমুক্ত হয়ে আমাদের সমাজ আলোকিত হবে এটাই আমার প্রত্যাশা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: