সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৪:১১ পূর্বাহ্ন

কিশোরগঞ্জে হত্যা মামলার সাক্ষীর পা কেটে ফেলার দায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি.
কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে একটি হত্যা মামলার সাক্ষীর পা কেটে ফেলার দায়ে তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও অপর দুইজনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া অসামিদের প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড করা হয়। এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় অন্য দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। রোববার সাড়ে ১১টার দিকে কিশোরগঞ্জের ১নং অতিরিক্ত জেলা ও দায়েরা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আব্দুর রহিম আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় দেন।
যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন কুলিয়ারচর উপজেলার ভাটিজগৎচর গ্রামের তাজুল ইসলাম (কসাই), গোলাপ মিয়া ও বিল্লাল মিয়া। এছাড়া একই গ্রামের আবু কালামকে তিন বছরের কারাদন্ডসহ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা এবং শামছু মিয়াকে এক বছরের কারাদন্ডসহ পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচর উপজেলার ভাটিজগৎচর গ্রামে ২০০৫ সালের ১২ ডিসেম্বর সকালে হাছেন আলী প্রধান (হাছু) হত্যা মামলার ১নং সাক্ষী মনির উদ্দিনকে জাফরাবাদ মোড়ের একটি চায়ের দোকান থেকে জোর করে ধরে নিয়ে যায় আসামিরা। পরে একটি চাতালে নিয়ে গাছের সঙ্গে হাত-পা বেঁধে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে ডান পা কেটে ফেলে। ঘটনার প্রায় দুই মাস পর ২০০৬ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি আহত মনির উদ্দিনের বড় ভাই মো. সিরাজ মিয়া বাদী হয়ে আটজনের নাম উল্লেখ করে কুলিয়ারচর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত আজ রোববার এই রায় দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: