সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০১:১০ পূর্বাহ্ন

পুলিশ পেটাল আবরারের ছোট ভাইকে

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি :
ছাত্রলীগের কিছু নেতা বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এবার তার ছোট ভাই ফায়াজকে পেটাল পুলিশ।

বুধবার (৯ অক্টোবর) কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় রায়ডাঙ্গা গ্রামে আবরারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এদিন আবরারের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে রায়ডাঙ্গা গ্রামে যান বুয়েটের উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম। তিনি সমবেদনা জানাতে আবরারের বাড়িতে প্রবেশ করতে চাইলে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বাধা দেয়।

পরে এলাকাবাসীর সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। এ সময় আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ, তার ফুপাতো ভাইয়ের স্ত্রী ও আরও একজন নারী আহত হন।

জানা যায়, বুয়েট ভিসি শুধুমাত্র আবরারের কবর জিয়ারত করতে পেরেছেন। কিন্তু আবরারের বাড়িতে প্রবেশ করতে পারেননি। বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী তাকে বাড়িতে প্রবেশে বাধা দিয়েছেন। বর্তমানে সেখানে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। পুলিশ স্থানীয় হাজার হাজার জনতার বিক্ষোভে বাধা দিলে পরিস্থিতির অবনতি হয়।

রবিবার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শেরে বাংলা হলে আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। নিহত ফাহাদ বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) শিক্ষার্থী ছিলেন। তিনি শের-ই বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে থাকতেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: