রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০৫:০৭ অপরাহ্ন

কিশোরগঞ্জ বড়বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনে তাজুল সভাপতি,দিলু সাঃ সম্পাদক নির্বাচিত

রাসেল আহম্মেদ জুয়েল, বিশেষ প্রতিনিধি:
কিশোরগঞ্জ বড়বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন ৩০ জুলাই সকাল (৯ – ৫)টা পর্যন্ত শহরের বত্রিশ উৎসব কমিউনিটি সেন্টারে অত্যন্ত আনন্দঘন উৎসব মুখোর পরিবেশে অনুষ্টিত হয়।

নির্বাচনকে ঘিরে কিশোরগঞ্জ শহরের ব্যবসার প্রাণকেন্দ্র বড়বাজারের ব্যবসায়ী মালিক কর্মচারী ভোটার ও সমর্থকদের উপস্থিতি ভোট কেন্দ্রে যোগ হয়েছে নতুন মাত্রা, যা নির্বাচনকে আরো প্রানবন্ধ ও উৎসবে পরিনত করেছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশন এডভোকেট আমিনুল ইসলাম রতন ও সহকারী নির্বাচন কমিশন প্রফেসর আল আমীনের একান্ত প্রচেষ্ঠায় ও বিপুল পরিমান আইন শৃংঙ্খলা বাহিনীর সহযোগীতায় কোন রকম অপ্রিতীকর ঘঠনা ছাড়াই দিনব্যাপী ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীদেরকে ভোট প্রদান করেন।

নির্বাচন কমিশনের বরাত দিয়ে জানা যায় ভোট গণনাশেষে রাত ৪:০৫ মিনিটে ফাইনাল রেজাল্ট প্রকাশ করা হয়। ৮৮৬ জন ভোটারের মধ্যে সর্বমোট ৮৫৭ টি ভোট পড়েছে।

সভাপতি পদে মোঃ তাজুল ইসলাম ছাতা প্রতীকে ৪৯৮ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন, তার প্রতিদ্বন্দ্বী আলহাজ্ব কামরুল ইসলাম পান সাইকেল প্রতীকে ৩৫৯ ভোট।
সাধারণ সম্পাদক পদে মোঃ দেলোয়ার হোসেন দিলু চেয়ার প্রতীকে ৪৬৬ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মোঃ ওসমান গনি দেয়াল ঘড়ি প্রতীকে পান ৩৭৮ ভোট।
কোষাধ্যক্ষ পদে মোঃ মিনহাজ উদ্দিন শাহীন থালাচাবি প্রতীকে ৪৮৩ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী প্রদীপ সরকার আলমারি প্রতীকে পান ৩৮০ ভোট।

সহ-সভাপতি পদে মোঃ খাইরুল ইসলাম হাতি প্রতীকে ৪৪০ ভোট ও এম এ রাশীদ হরিণ প্রতীকে ৩৪৫ ভোট, সহ-সাধারন সম্পাদক পদে আব্দুর রহমান রাজিব মোমবাতি প্রতীকে ৫৩২ ভোট ও মোঃ আব্দুল কাইয়ুম মই প্রতীকে ৪৩৮ ভোট, সাংগঠনিক সম্পাদক পদে মোঃ এমদাদুল হক স্বপন রিকসা প্রতীকে ৪৬০ ভোট, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক পদে মোঃ আলমগীর হোসেন চশমা প্রতীকে ৪৬৫ ভোট, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মোঃ আব্দুল মালেক সজীব ফুটবল প্রতীকে ৪৪৬ ভোট এবং কার্যকরী সদস্য পদে মোঃ কবীর মিয়া তীরধনু ৫৭৯, মোঃ জহিরুল ইসলাম লিয়ন উড়োজাহাজ ৫৭৪, মোঃ আওলাদ হোসেন তলোয়ার ৫১২, সঞ্জয় চন্দ্র বর্মণ ঘোড়া ৪৫৩, গৌতম রায় মোবাইল ৪৪০, হাফেজ আইয়ুব উট ৪৩৫, কামরুল ইসলাম ট্রাক্টর ৪২৯ ও দিদার রেলগাড়ী ৪১৯ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন।
দুটি প্যানেলে সর্বমোট ৩৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ১৮ জন প্রার্থী জয়লাভের গৌরব অর্জন করেন।
নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে হাড্ডাহাড্ডি দুই পরিষদের লড়াই হয়।
নব-নির্বাচিত সদস্যদের শপৎ আগামী সাধারণ সভায় অনুষ্ঠিত হবে।
উল্লেখ্য প্রতি তিন বছর পর পর এই সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়, গত ৮ জুন পরিচালনা কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় মাসুদুল হাসান মাসুদ কে আহ্বায়ক করে সমিতির কার্যক্রম চালানো হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: