বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ০৩:১৩ অপরাহ্ন

প্রতিবাদে উত্তাল কিশোরগঞ্জ, স্বর্ণলতা’র দুটি বাস জব্দ

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি :
বাজিতপুরে চলন্ত বাসে নার্স শাহিনুর আক্তার তানিয়াকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় প্রতিবাদে উত্তাল হয়ে উঠেছে পুরো কিশোরগঞ্জ জেলা।  বৃহস্পতিবার জেলা শহরে এবং কয়েকটি উপজেলায় এ ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ কর্মসূচি পালিত হয়েছে। সাধারণ শিক্ষার্থী, চিকিৎসক, নার্স, গণমাধ্যমকর্মী এবং বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্যরা এসব কর্মসূচিতে অংশ নেন। কিশোরগঞ্জ জেলা শহরে বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে চারটি মানববন্ধন ও

প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়। এর মধ্যে সকাল ১০টার দিকে বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে স্টেশন রোডে মানববন্ধন করা হয়। এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পারভেজ মিয়া, ডেপুটি সিভিল সার্জন মুজিবুর রহমান, বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আবদুল ওয়াহাব, নার্সেস অ্যাসোসিয়েশনের কিশোরগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি আ. ছালাম ভূঞা ও সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের স্টেশন রোডের কালীবাড়ি এলাকায় মানববন্ধন করে মহিলা পরিষদ। এতে অন্যদের মধ্যে মহিলা পরিষদের কিশোরগঞ্জ জেলা সভাপতি মায়া ভৌমিক, সাধারণ সম্পাদক আতিয়া হোসেন এবং সাবেক সভাপতি সুলতানা রাজিয়া ও নারীনেত্রী বিলকিছ বেগম বক্তব্য দেন।

অন্যদিকে বেলা ১১টার দিকে কালীবাড়ি মোড়ের সেতুসংলগ্ন সড়কে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের ব্যানারে তানিয়া ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে সমাবেশ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। এতে বক্তব্য দেন সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক নাহিদুল ইসলাম এবং কিশোরগঞ্জ জেলা কমিটির আহ্বায়ক মাজহারুল ইসলাম।

এ ছাড়া প্রায় একই সময়ে গৌরাঙ্গবাজার এলাকায় তানিয়া হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করে বাম গণতান্ত্রিক জোট। এতে অন্যদের মধ্যে জেলা সিপিবি সভাপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক এবং বাসদ নেতা শফিকুল ইসলাম বক্তব্য দেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, তানিয়া হত্যা সামাজিক অবক্ষয় ও অস্থিরতার উদাহরণ। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও বিচার করতে হবে।

এর বাইরে গতকাল ভৈরবসহ জেলার প্রায় প্রতিটি উপজেলায় তানিয়া হত্যার প্রতিবাদে বিভিন্ন সংগঠন মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে। এর আগে গত বুধবার কটিয়াদীর গাচহাটা সড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ সমাবেশ হয়। একই দিন বিকেলে বাজিতপুরের পিরিজপুরে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় তানিয়ার এলাকার লোকজন মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

                       স্বর্ণলতা’র দুটি বাস জব্দ

তানিয়াকে ধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত সন্দেহে স্বর্ণলতা পরিবহনের দুটি বাস জব্দ করেছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুরের কাপাসিয়ার দীঘিরপাড় এলাকা থেকে বাস দুটি জব্দ করা হয়। এ বাস দুটি হলো স্বর্ণলতা, ঢাকা মেট্রো-ব ১৫-৪২৭৪ এবং স্বর্ণলতা, ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-৬২৮৫। এর মধ্যে ঢাকা মেট্রো-ব-১৫-৪২৭৪ নম্বরের বাসটি ঘটনার সময় ব্যবহার করা হয়েছিল বলে ধারণা করছে পুলিশ।

তানিয়া ধর্ষণ ও হত্যা মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বাজিতপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সারোয়ার জাহান বলেন, ‘গাড়ি দুটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকার খবর পেয়ে কাপাসিয়ার টোক এলাকায় দীঘিরপাড় থেকে জব্দ করা হয়। পরে তা বাজিতপুর থানায় আনা হয়েছে।’

গত ৬ মে ঢাকার কল্যাণপুরে ইবনে সিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত নার্স শাহিনুর আক্তার তানিয়া বাসে করে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার বাহেরচর গ্রামের নিজ বাড়িতে আসছিলেন। পথে বাজিতপুরের জামতলী গজারিয়া এলাকায় তানিয়াকে স্বর্ণলতা নামে বাসটির চালক নুরুজ্জামান নুরু এবং তার সহকারী লালন মিয়াসহ কয়েকজন ধর্ষণ করে মাথায় আঘাত করে হত্যার পর ফেলে রেখে যায় বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নুরুজ্জামান নুরু এবং লালন মিয়াসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তারের পর রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: