রবিবার, ১৮ অগাস্ট ২০১৯, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২৬১ রানে টেনে ধরলো মাশরাফিরা

খেলাধুলা ডেস্ক :
ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশকে জয়ের জন্য ২৬২ রানের লক্ষ্য দিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ম্যাচের শুরুতে উইকেটই পাচ্ছিল না টাইগাররা। তবে সঠিক সময়ে মাশরাফি ‍বিন মুর্তজা জ্বলে উঠায় লক্ষ্যটা বড় হয়নি বাংলাদেশের।

অধিনায়কের পথ ধরে সাকিব আল হাসান, মুস্তাফিজ ও মেহেদি হাসান মিরাজ বল হাতে ঘুরে দাঁড়ানোয় ডাবলিনের ওয়ানডেতে ক্যারিবিয়ানরা নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেটে করতে পেরেছে ২৬১ রান।

মঙ্গলবার ডাবলিনে ত্রিদেশীয় সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিং বেছে নেন উইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। ব্যাটিংয়ে শুরুটা দারুণ করেন ক্যারিবীয় ওপেনার হোপ ও সুনীল অ্যামব্রিস। ১৬ ওভারে বিনা উইকেটে তারা যোগ করে ফেলেছিলেন ৮৫ রান।

তবে পানি পানের বিরতির পর আক্রমণে এসে নিজের দ্বিতীয় বলে সুনিল আমব্রিসকে ফিরিয়ে ৮৯ রানের উদ্বোধনী জুটি ভেঙেছেন এই অফ স্পিনার।

সপ্তদশ ওভারে আক্রমণে আসেন মিরাজ। প্রথম বলটি ছিল খুব বাজে। ব্যাকফুট পাঞ্চে বাউন্ডারি হাঁকান আমব্রিস। পরের বলে একটু বেরিয়ে এক্সট্রা কাভার দিয়ে তুলে দিতে চেয়েছিলেন এই ওপেনার। লাফিয়ে দারুণ দক্ষতায় ক্যাচ মুঠোয় জমান মাহমুদউল্লাহ।

৫০ বলে চারটি চারে ৩৮ রান করে ফিরেন আমব্রিস। ঠিক পরের ওভারেই ড্যারেন ব্রাভোকে উইকেটের পেছনে ক্যাচে পরিণত করেন সাকিব আল হাসান। ব্রাভো আউট হয়েছেন ৪ বলে মাত্র ১ রান করে।

অ্যামব্রিস আউট হলেও আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান শাই হোপ খেলেছেন সাবলীলভাবে। ১১ ডিসেম্বর শের ই বাংলায় অপরাজিত ১৪৬ রানের ইনিংস খেলা হোপ ১৪ ডিসেম্বর সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে করেছিলেন অপরাজিত ১০৮ রান। এবার ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম মোকাবেলায় করে বসলেন আরেকটি শতক।

হোপের সেঞ্চুরির পরই ওয়ানডেতে নিজের প্রথম ফিফটির দেখা পান রোস্টন চেজ। তবে এরপর আর নিজের ইনিংসটি টেনে নিতে পারেননি। ৪১তম ওভারে মাশরাফির লেংথ ডেলিভারি ডাউন দ্য উইকেটে পুল করতে চাইলে টপ এজ হয়ে শর্ট ফাইন লেগে অঞ্চলে মোস্তাফিজের হাতে ধরা পড়েন। তার আগে তিনি সংগ্রহ করেছেন ৫১ রান।

চেজের ফিরে যাওয়ার পর উইকেট আঁকড়ে রাখতে পারেননি সেঞ্চুরিয়ান শেই হোপও। ব্যক্তিগত ১০৯ রানে মোহাম্মদ মিঠুনের নিরাপদ হাতে পাঠিয়ে দেন নড়াইল এক্সপ্রেস।

এরপর আবার মাশরাফি আঘাত। তাতে উইকেট ছাড়া হয়ে দলকে বড় বিপদের মুখে ঠেলে দিয়ে যান। অধিনায়ক জ্যাসন হোল্ডার। তার আগে নামের পাশে যোগ করেছেন মাত্র ৪। ২২১ রানে নেই ক্যারিবিয়ানদের ৫ উইকেট!

৪৫তম ওভারের কথা। মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের একেবারে প্রথম ডেলিভারি,কিছুটা খাট লেংথের; যা পুল করতে গিয়ে ডিপ স্কয়ার লেগ অঞ্চলে সৌম্যর শিকার বনে যান ডরউইচ। যাওয়ার আগে দলকে দিয়ে যান ৬ রান।

এরপরের শিকারি মোস্তাফিজ। জোনাথান কার্টারকে (১১) স্লোয়ার মেরে লং অনে সাকিবের ক্যাচে পরিণত করেন। মোস্তাফিজের পর সাইফউদ্দিনের হানা দ্বিতীয় আঘাতে ১ রানে ক্লিন বোল্ড হয়ে ফেরেন কেমার রোচ।

এরপর ১৭ বলে ১৯ রান করা অ্যাশলি নার্সকে লং অনে সাব্বিরের তালুতে পুরে দেন মোস্তাফিজ। তাতে ৫০ ওভার শেষে ৯ উইকেটের বিনিময়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ গিয়ে দাঁড়ায় ২৬১ রান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: