মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৬:০৩ অপরাহ্ন

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডানকে সহজেই হারাল আবাহনী

ক্রীড়া প্রতিবেদক:
ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল) এ দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে আবাহনী লিমিটেড। সোমবার ৬ উইকেট এবং ১৫ বল হাতে রেখেই জিতেছে গেলবারের চ্যাম্পিয়নরা।

ক্রিকেট হোক, ফুটবক হোক কিংবা হকি সবকিছুতেই বাংলাদেশে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর নাম আবাহনী ও মোহামেডান। সেই মর্যাদার লড়াইয়ে লড়াইয়ে তারকায় ঠাসা আবাহনীর কাছে পাত্তাই পাইনি মোহামেডান।

মিরপুরে টস জিতে আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন আবাহনী অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন।

ব্যাটিংয়ের শুরুটা মোটামুটি ভালো করেন মোহামেডানের দুই ওপেনার লিটন কুমার দাস ও আব্দুল মজিদ। ২৭ রান করে নাজমুলের বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফিরেন লিটন। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে আসে ৪৭ রান। দলীয় ৮৭ রানে মোসাদ্দেকের বলে আউট হন আব্দুল মজিদ।

মোহামেডানের রানের সংগ্রহটা বড় করেন রকিবুল ও ইরফান শুক্কুর। দুইজন মিলে যোগ করেন ৬৮ রান। ব্যক্তিগত ৫৭ করে আউট হন ইরফান। ফিফটি হাঁকান দলের অধিনায়ক রকিবুলও। ৫১ করে আউট হন রকিবুল। শেষদিকে সিলভার ৩২ ও সোহাগের ২৭ রানে ভর করে ২৪৮ রান সংগ্রহ করে মোহামেডান। আবাহনীর হয়ে তিনটি করে উইকেট পান সাইফউদ্দিন ও নাজমুল।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৪৭.৩ ওভারেই জয় তুলে নেয় আবাহনী। ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু এনে দেন দুই ওপেনার সৌম্য সরকার ও জহুরুল ইসলাম। দুই ওপেনার মিলে দলীয় সংগ্রহ যোগ করে ১০৫ রান। এই জুটি ভাঙেন শাহদাত হোসেন। ৪৩ করে বোল্ড হন সৌম্য।

এরপর মোহামেডান বোলারদের উপরে চেপে বসে জহুরুল ও ওয়াসিম জাফর। দুইজন মিলে যোগ করেন ৬৯ রান। জাফর, শান্ত আউট হলেও ততক্ষণে ম্যাচ নিজেদের নিয়ন্ত্রণেই নিয়ে গিয়েছিল আবাহনী। তবে সেঞ্চুরি থেকে মাত্র চার রান দূরে থেকে সাজঘরে ফিরে যেতে হয় জহুরুলকে। শাহদাতের বলে বোল্ড হন জহুরুল। শেষ পর্যন্ত মোসাদ্দেকের অপরাজিত ১৮ ও সাব্বিরের অপরাজিত ২১ রানে ৬ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আবাহনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     More News Of This Category
themesbatulpar4545
%d bloggers like this: