FaceBook twitter Google plus utube RSS Feed
  

১১ আগস্ট, ২০১৭ - ২:৫৬ অপরাহ্ণ

হোসেনপুরে অজানা রোগে আক্রান্ত শিশু-দিশেহারা মা-বাবা

Hosenpor

x

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরে এক অজানা রোগে আক্রান্ত হয়েছে ইফসান নামে দুই বছরের এক শিশু। বিভিন্ন চিকিৎসা কেন্দ্রে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরও চিকিৎসকেরা ইফসানের রোগ নির্ণয় করতে পারছেন না বলে জানিয়েছে তার পরিবার। অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে ইফসান এখন যন্ত্রণায় ছটফট করছে। সহায়-সম্বল বিক্রি করে বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা করেও কোনো আশার আলো দেখতে না পেয়ে এখন দিশেহারা তার পরিবার।

ইফসানের রোগ নির্ণয়সহ উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও সমাজের দানশীল ব্যক্তিদের কাছে মানবিক সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন তার বাবা-মা। ইফসান উপজেলার সিদলা ইউনিয়নের নামা সিদলা গ্রামের হতদরিদ্র রাজমিস্ত্রির একমাত্র সন্তান।

ইফসানের মা রুমা আক্তার জানান, দুই বছর আগে কিশোরগঞ্জের মেডিল্যাব হাসপাতালে ডা. মিতুলের তত্ত্বাবধানে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে জন্ম হয় ইফসানের। জন্মের পর ইফসান সুস্থই ছিল। কিন্তু কিছু দিন পর তার হঠাৎ খিঁচুনি দেখা দিলে শিশুটিকে কিশোরগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খিঁচুনির মাত্রা বেড়ে গেলে তাকে দ্রুত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে ইনকিউবেটরে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রেখে দীর্ঘ এক মাস পাঁচ দিন চিকিৎসার পর কিছুটা সুস্থ হলে তাকে বাড়ি আনা হয়। এর পর থেকে শিশুটির মাথায় বিরল আকৃতির সমস্যা দেখা দেয়। মাথাটি নরম হয়ে বড় আকৃতির দোতলার মতো হয়ে যাচ্ছে। এ রোগের জন্য বিভিন্ন ডাক্তারের শরণাপন্ন হয়েছেন তার বাবা-মা। কিন্তু কোনো ওষুধে কাজ করছে না। তাদের অভিযোগ চিকিৎসকরা সঠিক রোগ নির্ণয় করতে পারছেন না। শিশুটির বাবা ইয়াসিন মিয়া বলেন, আমি সামান্য রাজমিস্ত্রি। দিন আনি দিন খাই। ছেলের চিকিৎসার জন্য অনেক টাকার প্রয়োজন। এত টাকা কোথায় পাব। স্থানীয় চিকিৎসকদের মতে, দেশে কিংবা বিদেশে উন্নত চিকিৎসা করাতে পারলে হয়তো শিশুটি ভালো হতে পারে।

print