FaceBook twitter Google plus utube RSS Feed
  

১৫ জুন, ২০১৬ - ৫:৪৮ অপরাহ্ণ

শিক্ষকদের বিরুদ্ধে যৌন অভিযোগ প্রমাণিত হলে চাকরিচ্যুত

শিক্ষামন্ত্রী

x

সংসদ ভবন প্রতিবেদক : কোনো শিক্ষক ছাত্রীদের যৌন হয়রানি করেছেন এ ধরনের অভিযোগ বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন হয়রানি নির্যাতনমূলক সেলে পাওয়া গেলে প্রতিটি ঘটনার জন্য একটি করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

প্রমাণিত অভিযোগের ক্ষেত্রে অপরাধী শিক্ষকের বিরুদ্ধে অপরাধের গুরুত্ব ভেবে চাকরিচ্যুতসহ অন্যান্য সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে শাস্তি দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

বুধবার (১৫ জুন) জাতীয় সংসদে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মো. রুস্তম আলী ফরাজীর টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা জানান।

মন্ত্রী জানান, কোনো শিক্ষক ছাত্রীদের যৌন হয়রানি করেছেন এ ধরনের অভিযোগ বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌন হয়রানি নির্যাতনমূলক সেলে, অনুষদে, বিভাগে, রেজিস্ট্রার অফিসে অথবা ভিসির অফিসে পাওয়া গেলে ঐ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ঘটনার জন্য তদন্ত কমিটি করা হয়। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে রিজেন্ট বোর্ড অথবা সিন্ডিকেটে উপস্থাপন করা হয়। প্রমাণিত অভিযোগের ক্ষেত্রে অপরাধী শিক্ষকের বিরুদ্ধে অপরাধের গুরুত্ব ভেবে চাকরিচ্যুতসহ অন্যান্য সুবিধা থেকে বঞ্চিত করে শাস্তি প্রদান করা হয়।

মন্ত্রী আরোও জানান, প্রতিটি বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি করে যৌন হয়রানি নিযার্তন সেল স্থাপন করা হয়েছে। এসব সেল কাজ করছে বিধায় বিশেষ কমিটি গঠন করার প্রয়োজন নেই।

প্রতি জেলায় একটি করে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের পরিকল্পনা
সফুরা বেগমের এক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী জানান, উচ্চ শিক্ষার প্রসারের লক্ষ্যে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে দেশের প্রতিটি জেলায় একটি করে সাধারণ-বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। মন্ত্রী জানান, দেশে বর্তমানে সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগে স্থাপিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা ১৩২টি। তার মধ্যে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ৩৭টি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ৯৫টি।

print