FaceBook twitter Google plus utube RSS Feed
  

৩ আগস্ট, ২০১৭ - ৫:৫৩ অপরাহ্ণ

ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে ৫ আগস্ট (শনিবার)

1501785498_65

x

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ছয় মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সী শিশুদের বিনা মূল্যে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে আগামী শনিবার (৫ আগস্ট)। সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত ৬-১১ মাস বয়সী সব শিশুকে একটি নীল রঙের এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী শিশুকে ১টি লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। একই সঙ্গে প্রচার করা হবে পুষ্টিবার্তা। এ দফায় সারা দেশে প্রায় ২ কোটি ২৫ লাখের বেশি শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে সরকার। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহযোগিতায় জনস্বাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠানের উদ্যোগে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপিত হবে।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উপলক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিং এ প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক একথা বলেন। আগামী ৫ আগস্ট সারা দেশে ৬ মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সী শিশুদের মধ্যে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব সিরাজুল হক খান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদসহ মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ২ কোটি ২৫ লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর পরিকল্পনা আছে জানিয়ে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিশুদেরকে ভরা পেটে কেন্দ্রে আনতে হবে এবং জোর করে বা কান্নারত অবস্থায় ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো ঠিক হবে না। অসুস্থ শিশুকে এই ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে না। রাতকানা রোগ থেকে রক্ষা পেতে এবং শিশুর স্বাভাবিক বেড়ে উঠা ও রোগ প্রতিরোধ বৃদ্ধি নিশ্চিত করতে সকল অভিভাবকদেরকে তাঁদের ছয় মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সের মধ্যে শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানোর আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ভ্রাম্যমান কেন্দ্রগুলো বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ড, লঞ্চঘাট, ফেরিঘাট, ব্রীজের টোল, বিমান বন্দর, রেল স্টেশন, খেয়াঘাট ইত্যাদি স্থানে অবস্থান করবে। প্রতিটি কেন্দ্রে কমপক্ষে ৩ জন প্রশিক্ষিত সেচ্ছাসেবী দায়িত্ব পালন করবে। তবে দুর্গম এলাকায় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন সফল করার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন পর্যালোচনার জন্য ক্যাম্পেইন-এর দিন প্রতিটি উপজেলায়, জেলায় ও কেন্দ্রে সার্বক্ষণিক কন্ট্রোল রুম খোলা থাকবে।

কুচক্রী মহলের নেতিবাচক প্রচারনায় জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন যেন ব্যাহত না হয় সেদিকে সতর্ক থাকার জন্য গণমাধ্যম ও সুশীল সমাজের প্রতি আহ্বান জানিয়ে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ভিটামিন ‘এ’ শিশুর জন্য অপরিহার্য ও নিরাপদ। এই ক্যাপসুল খেলে শিশুর কোনো ক্ষতি হবে না। সুস্থ জাতি গঠনের লক্ষ্যে ৫ আগস্ট শনিবার দেশের সব শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানোর কর্মসূচিকে সফল করতে হবে।

print