FaceBook twitter Google plus utube RSS Feed
  

১৫ ডিসেম্বর, ২০১৫ - ৯:২৪ অপরাহ্ণ

প্রচারে চলছে পাগলামি

x

2015_12

রাজশাহী প্রতিবেদক : ভোটের মাঠে বইছে গরম হাওয়া। চলছে চায়ের কাপে ভোট গল্পের ঝড়। ভোটের দিন যতো ঘনিয়ে আসছে প্রচার পাগল মানুষের পাগলামি বাড়ছে ততোই। নিজেদের প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণায় তারা কত কী যে করছেন, তার ইয়ত্তা নেই।

কেউবা ভ্যান, সাইকেল, রিকশার হাতলে ঝুলিয়ে নিয়েছেন পছন্দের প্রার্থীর সাদাকালো পোস্টার। এভাবে তারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন বাজার-ঘাটে। আবার কেউ মোটরসাইকেলের পেছনের রেজিস্টেশন প্লেট ঢেকে ফেলেছেন পছন্দের প্রার্থীর পোস্টার দিয়ে।

রাজশাহীর পুঠিয়া ও কেশরহাট পৌরসভায় দেখা গেলো এমন চিত্র। পছন্দের প্রার্থীর পোস্টার সাঁটিয়ে রেখেছেন মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন প্লেটে। নির্বাচন পাগল মানুষরা মেতে উঠেছে প্রচারের আনন্দে। ভোটারদের চোখে যেখানেই পড়বে সেখানই তারা সাঁটিয়ে দিতে চাচ্ছেন পোস্টার।

রাজশাহীর কেশরহাট পৌরসভার ভ্যানচালক আব্দুল আলিম। ১৪ ডিসেম্বর থেকে প্রতীক বরাদ্দ শুরুর পর থেকে আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থীর পোস্টার লাগিয়ে রেখেছেন তার ভ্যানের সামনে।

আব্দুল আলিম জানান, ম্যালা দিন পর ভুট জমছে। মুজিদের টাইমত থ্যাকি আমলীগ করিত্তি। ভুটের স্যাময় তাই লোকা (নৌকা) লিয়ে ঘুরিত্তি।

তানোর পৌরসভায় ভটভটি চালক আকরাম হোসেন। তার ভটভটির সামনে লাগিয়ে রেখেছেন ধানের শীষের পোস্টার। আকরাম বললেন, মেলাদিন পর ধানের শীষের ভোট হচ্চে বা রে। তাই সাথে লিয়ে বেড়াচ্চি।

পৌরসভাগুলো ছেয়ে গেছে পোস্টারে পোস্টারে। যেদিকেই চোখ যায় শুধু প্রার্থীদের ভোট প্রার্থনার পোস্টার। সমর্থকরা তাদের প্রার্থীদের নিয়ে যে যেমন করে পারছেন চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচারণা।

একইভাবে বাগমারা উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভায় বইছে ভোটের গমর হাওয়া। পৌর এলাকার অলিগলি পোস্টারে ছেয়ে গেছে।

পৌর বাজার এলাকার চায়ের দোকানদার শমসের আলী বললেন, প্রার্থীর মানুষরা আসিচ্চে আর পোস্টার মারি যাত্তে। হামার চায়ের দোকান পোস্টারে ভরে যাত্তে। হামার চায়ের বেচাও বাড়িত্তে।

print