FaceBook twitter Google plus utube RSS Feed
  

২৯ জুলাই, ২০১৬ - ৭:১৩ অপরাহ্ণ

জঙ্গি দমনে ব্লক রেইড

Bd-pratidin

x

নিজস্ব প্রতিবেদক : জঙ্গি দমনে রাজধানীসহ সারা দেশে ব্লক রেইড চলছে। এরই মধ্যে ব্লক রেইডের কারণে রাজধানীর কল্যাণপুরে জঙ্গি আস্তানা খুঁজে পেয়েছে পুলিশ। ওই আস্তানায় অপারেশন-২৬ পরিচালনা করে বড় ধরনের সাফল্যের পর ব্লক রেইডের গতি আরও বাড়বে বলে মনে করছেন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যরা। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ব্লক রেইড অব্যাহত থাকবে বলে নিশ্চিত করেছে একাধিক সূত্র। রাজধানীর গুলশানে হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় রোমহর্ষক ঘটনার পর সারা দেশে এক সপ্তাহের সাঁড়াশি অভিযান চালায় সরকার। তবে ওই অভিযানে তেমন একটা সাফল্য না আসার কারণেই মূলত সিদ্ধান্ত আসে ব্লক রেইডের। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সব কটি বাহিনীর প্রধানকে জানিয়ে দেওয়া হয় এ নির্দেশনা। তবে ব্লক রেইডের কারণে যাতে কোনো নিরীহ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে বলা হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাত থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত রাজধানীর রমনা, কুমিল্লা, সিলেট, লালমনিরহাট, নারায়ণগঞ্জ, রাজশাহী, বগুড়া ও মাগুরায় পাঁচ জঙ্গিসহ ১০৪ জন গ্রেফতার হয়েছে ব্লক রেইডে। জঙ্গি ছাড়া গ্রেফতার অধিকাংশই জামায়াত-শিবিরের নেতা-কর্মী। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, সারা দেশে জঙ্গিবিরোধী ব্লক রেইড চলছে। দেশের মানুষের আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। এসব অভিযানে নিরীহ কোনো মানুষকে হয়রানি করা হচ্ছে না। কল্যাণপুরে অভিযানে হতাহতরা সবাই জঙ্গি। সেখানে সাধারণ কোনো মানুষ নেই।

তিনি বলেন, দু-এক দিনের মধ্যে বড় ধরনের নাশকতা ঘটাতেই কল্যাণপুরে অবস্থান নিয়েছিল জেএমবি সদস্যরা। ‘ব্লক রেইড’ নামে যৌথ বাহিনীর রুটিন অভিযান চলছিল। অভিযান সফল হয়েছে। আগে থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ব্লক রেইড দেওয়া হচ্ছে। তবে কখন কোথায় অভিযান চালানো হবে তা জানানো হচ্ছে না। রাজধানীতে বিভিন্ন জায়গায় ব্লক রেইড চলবে বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। ১০ জুন থেকে এক সপ্তাহের জন্য চলা অভিযানে ১৯৪ জন জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছিল পুলিশ সদর দফতর। জঙ্গিদের মধ্যে জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) ১৫১, জাগ্রত মুসলিম জনতা বাংলাদেশের ৭, হিযবুত তাহ্রীরের ২১, আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) ৬, আনসার আল ইসলামের ৩, আল্লাহর দলের ৪, হরকাতুল জিহাদের ১ ও আফগানিস্তান থেকে ফেরত একটি জঙ্গি সংগঠনের ১ জন সদস্য রয়েছেন।

র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপস্) কর্নেল আনোয়ার লতিফ খান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, জঙ্গিবাদ দমনে পরিস্থিতি বিবেচনা করে যা প্রয়োজন তা-ই করবে র‌্যাব। ঢাকার বাইরে অনেক অপারেশনেই র‌্যাব-পুলিশের যৌথ অভিযান হচ্ছে। জঙ্গিবাদ দমনে কোনো ধরনের ছাড় নয়। বুধবার দিবাগত রাতে রাজধানীর রমনা থানার নয়াটোলা বস্তিতে পুলিশ ব্লক রেইড চালিয়েছে। তবে অভিযানে কেউ আটক হয়নি। রমনা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আলী হোসেন জানান, রাত ১০টায় নয়াটোলার ১২ নম্বর বস্তিতে জঙ্গি ও সন্ত্রাসী ধরতে অভিযান চালানো হয়। ঘণ্টাব্যাপী অভিযানে কেউ আটক হয়নি। এর আগের রাতে মোহাম্মদপুরে সাঁড়াশি অভিযান চালায় পুলিশ। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কর্মকর্তারা জানান, গুলশানে জঙ্গি হামলার পর রাজধানীর সন্দেহভাজন মেস ও বাড়িতে ব্লক রেইড চালানোর নির্দেশ দেন ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া। এর অংশ হিসেবেই প্রায় প্রতিদিন রাজধানীতে ব্লক রেইড চালানো হচ্ছে। এরই মধ্যে ব্লক রেইডে শতাধিক সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের অনেকেই বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত। এদিকে জঙ্গি ধরতে এরই মধ্যে র‌্যাব-পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়েছে সিরাজগঞ্জ, বগুড়া ও গাইবান্ধার গহিন চরে। গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য ছিল, বিভিন্ন সময় ওই চরগুলোতে প্রশিক্ষণ নিয়েছিল জঙ্গিরা। বিপথগামী যুবকদের জঙ্গিবাদ থেকে ফিরে এলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে— সিরাজগঞ্জের চরেই এ ঘোষণা দিয়েছিলেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। ডিএমপির উপকমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান বলেন, অপরাধ নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবেই ব্লক রেইড চালানো হচ্ছে। ব্লক রেইডের জন্য নগরবাসীর আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর—

কুমিল্লা : জঙ্গি সন্দেহে ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ডিগ্রি শাখার একটি ছাত্রীনিবাস থেকে ইসলামী ছাত্রী সংস্থার তিন ছাত্রীকে আটক করা হয়েছে। সন্ত্রাস দমন আইনে মামলার পর গতকাল তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়। আটকরা হলেন— চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চাপাচো গ্রামের আরজিনা আক্তার চম্পা, দেবিদ্বারের ধামতী গ্রামের মতিউর রহমানের মেয়ে কানিজ ফারহানা বাতুল ও চাঁদপুরের কচুয়ার ইলিয়াছ মিয়ার মেয়ে সালমা আক্তার। আটকদের কাছে বেশ কিছু জিহাদি বই পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

মাগুরা : মাগুরায় জঙ্গি তত্পরতার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে দু্জনকে আটক করেছে পুলিশ। এরা হলেন—মাগুরা হোসেন শহীদ কলেজ ইসলামী ছাত্রশিবির শাখার সভাপতি আল আমিন ও শহরের দোহার পাড় এলাকার আল আমিন এতিমখানার সুপারিনটেনডেন্ট জেলা জামায়াতের সাবেক আমির মাওলানা লিয়াকত হোসেন। আল আমিনের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ জিহাদি বই ও সিডি জব্দ করা হয়েছে বলে দাবি পুলিশের।

সিলেট : জকিগঞ্জে বিশেষ অভিযানে আটক হয়েছেন ৩১ জন। এদের অধিকাংশই জামায়াত-শিবির কর্মী বলে দাবি করেছে পুলিশ। জকিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, বুধবার রাত ১০টা থেকে গতকাল ভোর পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ২২ জামায়াত-শিবির কর্মীসহ ৩১ জনকে আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে জব্দ করা হয়েছে দেশীয় অস্ত্র, ফেনসিডিলসহ কিছু জিহাদি বই। আটক জামায়াত-শিবির কর্মীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় নাশকতার চেষ্টাসহ কয়েকটি মামলা রয়েছে।

লালমনিরহাট : জেলার বিভিন্ন স্থানে বুধবার দিবাগত গভীর রাতে অভিযানে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের ৩৫ নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার অভিযান চালিয়ে আটক করা হয় আরও ২৫ জনকে। এ নিয়ে গত দুই দিনে ৬০ জনকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। আটকদের বিরুদ্ধে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের মামলা আছে।

সিদ্ধিরগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের বিশেষ অভিযানে জামায়াত নেতাসহ পাঁচজন গ্রেফতার হয়েছেন। বুধবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন— সিদ্ধিরগঞ্জ থানা জামায়াতের সমাজকল্যাণ সম্পাদক আবদুর রহমান, মোহাম্মদ হোসেন ওরফে শুটার মোহন, মোজাম্মেল হোসেন মনা, আলমগীর হোসেন ও আবদুল করিম।

রাজশাহী : বাগমারা উপজেলার বড়বিহানালী গ্রাম থেকে গতকাল আকবর আলী ওরফে ভাটা আকবর নামে সন্দেহভাজন এক জেএমবি সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। বাগমারা থানার ওসি জানান, আটক আকবর আলী নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবির সদস্য। তিনি মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া জেএমবির শীর্ষ নেতা সিদ্দিকুল ইসলাম ওরফে বাংলাভাইয়ের অর্থদাতা ছিলেন। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা আছে।

বগুড়া : কাহালু উপজেলায় একাধিক নাশকতা মামলার আসামি শিবির নেতা সিহাব আহমেদকে বুধবার রাতে চারমাথা এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সিহাব কাহালু উপজেলার মাগুরা মাদ্রাসার সুপার আবদুস সামাদের ছেলে ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্সের ছাত্র। গতকাল আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

যশোর : মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে আবদুল লতিফ ওরফে লতিফ নামে এক ব্যক্তিকে বুধবার রাতে সদর উপজেলার আবাদকচুয়া সাতঘর গ্রাম থেকে আটক করা হয়। তিনি ওই গ্রামের শামছুল হকের ছেলে। পুলিশ জানায়, ধর্ষণ, লুট, অগ্নিসংযোগসহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়িত ছিলেন লতিফ। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি।

print