FaceBook twitter Google plus utube RSS Feed
  

১৪ জুন, ২০১৭ - ১১:৩৫ পূর্বাহ্ণ

কিশোরগঞ্জের ৬ আসনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় যারা

আওয়ামীলীগ

x

রাজনীতি ডেস্ক
আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে এ ব্যাপারে আগেভাগেই সর্বোচ্চ প্রস্তুতি শুরু করেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রাথমিক তালিকা তৈরির কাজও শেষ করে এনেছে দলটি।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় ও জেলা কমিটির পাশাপাশি সরকারি একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার সমন্বয়ে মোট তিনশ আসনে প্রায় এক হাজার দুইশ প্রার্থীর তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। স্বল্পসংখ্যক আসনে এক বা একাধিক প্রার্থী থাকলেও বেশিরভাগ আসনেই ৪ থেকে ৫ জন প্রার্থী রয়েছেন।

এদের মধ্যে কারা জনসমর্থনে এগিয়ে তা জানতে মাসে দুইবার করে জরিপ চালানো হচ্ছে- যার প্রতিবেদন সরাসরি দলীয় প্রধান শেখ হাসিনার কাছে জমা পড়ছে।

দলের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, যেসব সাংসদ বার্ধক্যে উপনীত, দলে সময় দিতে পারেন না, অপরাধের সঙ্গে জড়িত, গণবিচ্ছিন্ন, বিতর্কিত, সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেন তাদের এবার মনোনয়ন দেয়া হবে না। এবার মনোনয়নের ক্ষেত্রে তরুণ, মেধাবী নেতাদের প্রাধান্য দেয়া হবে।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ জেলার ৬টি আসনের মধ্যে আওয়ামী লীগ ৫টি এবং জাতীয় পার্টি একটি আসনে বিজয়ী হয়। একমাত্র কিশোরগঞ্জ-৩ (তাড়াইল-করিমগঞ্জ)আসনে বিজয়ী হওয়া জাতীয় পার্টির প্রার্থী শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নুর বিপরীতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী দিলেও শেষ মুহূর্তে মনোনয়ন প্রার্থিতা করে নেয়া হয়।

আগামী নির্বাচনে এই জেলার ৬টি আসনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশীর সংখ্যা ১৯ জন। আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী এই নেতাদের মধ্য থেকে আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন দেয়া হবে বলে দলীয় সূত্র জানিয়েছে।

কিশোরগঞ্জ-১ (কিশোরগঞ্জ সদর-হোসেনপুর): জনপ্রশাসনমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এমপি।

কিশোরগঞ্জ-২ (কটিয়াদী-পাকুন্দিয়া): বর্তমান এমপি অ্যাডভোকেট মো. সোহরাব উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ আফজল, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পুত্র রাসেল আহমেদ তুহিন, সাবেক আইজিপি নূর মোহাম্মদ, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর মোখলেছুর রহমান বাদল, পাকুন্দিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম রেনু ও আওয়ামী লীগ নেতা মঈনুজ্জামান অপু।

কিশোরগঞ্জ-৩ (তাড়াইল-করিমগঞ্জ): সাবেক এমপি ড. মিজানুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শেখ কবীর আহমেদ, করিমগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক নাসিরুল ইসলাম খান আওলাদ ও ব্যবসায়ী এরশাদ উদ্দিন।

কিশোরগঞ্জ-৪ (ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম): রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পুত্র ও বর্তমান এমপি রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এবং জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান। তবে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের পুত্র ও বর্তমান এমপি রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিকই মনোনয়ন পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কিশোরগঞ্জ-৫ (নিকলী-বাজিতপুর): বর্তমান এমপি মো. আফজাল হোসেন, ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অজয় কর খোকন এবং জেলা কৃষকলীগের সহ-সভাপতি ফারুক আহমেদ।

কিশোরগঞ্জ-৬ (কুলিয়ারচর-ভৈরব): বর্তমান এমপি নাজমুল হাসান পাপন ও সিআইপি মো. মুছা মিয়া। তবে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের পুত্র নাজমুল হাসান পাপনই মনোনয়ন পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

print