FaceBook twitter Google plus utube RSS Feed
  

২৯ জুন, ২০১৭ - ৫:৪২ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগে নেতাকে পেটানোর প্রতিবাদে অগ্নিসংযোগ, আহত ১৫

মাগুরা

x

মাগুরা প্রতিনিধি:
পূর্ব বিরোধের জের ধরে আজ মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নানকে পিটিয়ে জখম করেছে বিনোদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান শিকদারের একটি গ্রুপ। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী মাগুরা-মহম্মদপুর সড়ক প্রায় দুই ঘন্টা অবরোধ করে রাখে। পরে চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান শিকদারের বাড়িতে হামলা ভাঙচুর ও পাটের গুদামে আগুন দিয়েছে। পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ৫০ রাউন্ড রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাস ছুড়েছে। এ সময় কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন।

হামলার শিকার আব্দুল মান্নান জানান, সকালে তিনি পেশাগত দায়িত্ব পালনের উদ্দেশে মহম্মদপুরের বেথুলিয়া গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে মাগুরা শহরে আসছিলেন। পথিমধ্যে বিনোদপুরের তল্যাবাড়িয়া এলাকায় প্রতিপক্ষ গ্রুপ তার ওপর হামলা চালিয়ে পিটিয়ে জখম করে। এসময় স্থানীয়রা তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। হামলাকারীরা বিনোদপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও বিনোদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান শিকদারের লোক।

মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তারিকুল ইসলাম ও এলাকাবাসী জানান, এ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান আহত হওয়ার খবরে বিনোদপুর ও মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঘটনার পরপরই সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত মাগুরা-মহম্মদপুর সড়ক অবরোধ করে রাখে। একই সময় মাগুরা জেলা জজ আদালতের সামনে আইনজীবীরা হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করে। এ সময় মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলামসহ অন্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে হামলাকারিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয়। পরে উত্তেজিত এলাকাবাসী বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে মিজানুর রহমান শিকদারের বাড়িতে হামলা করে ভাঙচুর ও তাদের পাটের গুদামে আগুন দেয়। এ সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ প্রায় ৫০ রাউন্ড রাবার বুলেট ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে। এতে প্রায় ১৫ জন আহত হয়। বেথুলিয়া গ্রামের মনিরুল (২৮) ও খালিয়া গ্রামের শামীম (৩৬) রাবার বুলেটে আহত হয়ে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। বাকিরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে।

print